National News

৭৮ পাউন্ডের কেক কেটে রাষ্ট্রপতির জন্মদিন পালন

১ জানুয়ারি ছিল রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের ৭৮তম জন্মদিন। তাঁর জন্মদিনকে স্মরণীয় করে রাখতে কিশোরগঞ্জে ঘটা করে আয়োজন করা হয় জন্মদিনের উৎসব। আজ শুক্রবার বিকেলে শহরের গুরুদয়াল সরকারি কলেজ মাঠের কাছে মুক্তমঞ্চে মহাধুমধামে ৭৮ পাউন্ডের কেক কেটে রাষ্ট্রপতির জন্মদিন পালন করা হয়।

এ সময় রাষ্ট্রপতির মেজো ছেলে রাসেল আহমেদ তুহিন ও চলচ্চিত্র অভিনেতা সাইমন সাদিক উপস্থিত ছিলেন। মুক্তমঞ্চে আওয়ামী লীগের প্রতীক নৌকার আদলে তৈরি করা বিশাল মঞ্চে বিকাল চারটায় জন্মদিনের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়।

রাষ্ট্রপতির জন্মদিন উদযাপন কমিটির সমন্বয়ক জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহ আজিজুল হকের সভাপতিত্বে আয়োজিত জন্মদিনের আনুষ্ঠানিকতায় বক্তৃতা করেন কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. জিল্লুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) দুলাল চন্দ্র সূত্রধর, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহান, কিশোরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. পারভেজ মিয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম বকুল বকুল প্রমুখ।

আলোচনায় সভায় বক্তরা বলেন স্বাধীনতা সংগ্রাম থেকে শুরু করে গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রামে আবদুল হামিদের ভূমিকা স্মরণীয় হয়ে থাকবে। তিনি হাওর এলাকার মানুষ। তাঁর হাত ধরে বর্তমানে হাওরের জীবনচিত্র ও আর্থসামাজিক অবস্থা পাল্টে গেছে। এক সময়ের বঞ্চিত হাওরের লোকজন এখন দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। যে কারণে কিশোরগঞ্জসহ হাওরবাসী তাঁকে যুগ যুগ মনে রাখবে। কিশোরগঞ্জের রাজনীতি ও উন্নয়নে তাঁর অবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

রাষ্ট্রপতির জন্মদিনের অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীসহ দলমত নির্বিশেষ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার কয়েক হাজার নারী-পুরুষ যোগ দেন। কেক কাটার সময় রাষ্ট্রপতিকে উৎসর্গ করে রচিত গান পরিবেশন করেন বেতার ও টিভি শিল্পী মো. আবুল হাশেম।

পাঠকের মতামত:
Show More
Back to top button