Miscellaneous News

সেলুনে চাকরি করা বখাটে অপু যেভাবে হয়ে গেলেন তারকা!

সেলুনে চাকরি করা – টিকটকের মতো অ্যাপে রাতারাতি খ্যাতি পাচ্ছেন উঠতি বয়সীরা। গড়ে উঠছে কিশোর অনুসারীদের বিশাল বা’হিনী। ধীরে ধীরে গ্যাং সংস্কৃতির দিকে ঝুঁকছেন তারা, বাড়ছে অ’পরাধ প্রবণতা। রাজধানীর সড়কে গোলমালের অ’ভিযোগে লাইকি ও টিকটক তারকা অপু গ্রে’ফতারের পর এমনই বলছে পু’লিশ। বিশেষজ্ঞরাও একমত।

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীর মাদ্রাসাছাত্র ইয়াছিন আরাফাত অপু। অ’ভাবের কারণে পড়াশোনা করতে পারেনি বেশী দূর। এরপর চাকরি নেন একটি সেলুনে। সেখান থেকে কয়েকজন বন্ধুর মাধ্যমে জানতে পারে মোবাইলভিত্তিক অ্যাপস টিকটক ও লাইকি সম্পর্কে।

এরপর টিকটক ও লাইকিতে নানা ভিডিও তৈরি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করে অল্প দিনেই অর্জন করেন জনপ্রিয়তা। গড়ে তোলেন অনুসারীদের বিরাট বা’হিনী। ২ মাসেই আয় করেন ৫০ হাজার টাকা। নতুন ভিডিও বানাতে ২ আগস্ট অনুসারীদের নিয়ে ঢাকায় আসেন অপু।

পু’লিশ বলছে, উ’শৃঙ্খল আচরণে কিশোর গ্যাং সংস্কৃতিকে উৎসাহ দিচ্ছিলো তারা। উত্তরা উপ-কমিশনার নাবিদ কামাল শৈবাল বলেন, তার সঙ্গীরা কিশোর গ্যাং হিসেবে নিজেদেরকে প্রকাশ করার জোর প্রচে’ষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল। মা’দকের সাথে তারা জ’ড়িত কিনা খতিয়ে দেখছি।

রাজধানীর উত্তরায় সড়কে বিশৃঙ্খলা সৃ’ষ্টি ও মা’রধরের অ’ভিযোগে রোববার দা’য়ের করা মা’মলায় সোমবার (৩ আগস্ট) অপুকে গ্রে’ফতার করে পু’লিশ। জানা গেছে, প্রকৌশলী মেহেদি হাসান রবিন উত্তরার সড়কটি দিয়ে তার ব্যক্তিগত গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছিলেন। সঙ্গে তার দু’তিনজন বন্ধুও ছিলেন। এ সময় আলাউল এভিনিউয়ের সড়ক আ’টকে অপু ও তার সহযোগীরা ভিডিও বানাচ্ছিল।

রবিন রাস্তা আ’টকানো দেখে হর্ন বাজান। এতে ক্ষি’প্ত হয়ে অপু ও তার সহযোগীরা রবিনসহ তার বন্ধুদের মা’রধর করেন। এতে রবিন এবং বাকি দুজন গুরুতর আ’হত হন।

উত্তরা পশ্চিম থা’না সূত্র জানায়, মা’মলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ‘অপু ও তার সহযোগীরা বেআ’ইনিভাবে জনতাবদ্ধ হয়ে গতিরোধ করে দেশীয় অ’স্ত্রশ’স্ত্র দিয়ে মা’রপিট করে র’ক্তাক্ত ও গু’রুতর জ’খমসহ চু’রি, ভ’য়ভী’তি ও হু’মকির অ’পরাধ করেছে।’

মা’মলায় দণ্ডবিধি ১৪৩, ৩৪১, ৩২৩, ৩২৪, ৩২৫, ৩৫৯ ও ৩৭৯ ধা’রায় অ’পরাধ করার উল্লেখ করা হয়েছে। দণ্ডবিধির ধারা ১৪৩ বেআ’ইনি সমাবেশ করার অ’পরাধে, ৩৪৩ অ’ন্যায়ভাবে কাজে বা’ধা প্রদানের জন্য, ধারা ৩২৩ কোনো ব্যক্তিকে হাত দ্বারা বা ভোঁতা অ’স্ত্র দ্বারা আ’ঘাত করায়, ধারা ৩২৫ কোনো ব্যক্তিকে হাত দ্বারা বা ভোঁতা অ’স্ত্র দ্বারা ‘গুরুতর’ আ’ঘাত করার সা’জা, ধারা ৩২৬ কোনো ব্যক্তিকে (শুধুমাত্র) ধা’রালো অ’স্ত্র দ্বারা গু’রুতর আ’ঘাত করা এবং ধারা ৩৭৯ ঘরের বাইরে বা খোলা জায়গা থেকে মালামাল চু’রি করার অ’পরাধে মা’মলা দেয়া হয়েছে।

উত্তরা পূর্ব থা’নার এসআই আজিজুল তালুকদারকে মা’মলাটি ত’দন্ত করার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এজাহারে অপুসহ তার বন্ধু রনি, মুরাদ, জমিরউদ্দিন, নাজমুল, শাহদাত হোসেন শাকিলসহ অ’জ্ঞাত ২০-২৫ জনকে আ’সামি করা হয়েছে।

‘অপু ভাই’কে আদালতে নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন মা’মলার ত’দন্ত কর্মক’র্তা এসআই আজিজুল ই’সলাম। তিনি জানান, গ্রে’ফতার অপুর বাবার নাম শহীদ ই’সলাম। তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী। দক্ষিণখান এলাকার একটি বাসায় থাকতো অপু। মঙ্গলবার সহযোগীসহ অপুকে আদালতে পাঠানো হবে।

পাঠকের মতামত:
Back to top button