Miscellaneous News

ঈদের পরের দিনও ঘরমুখো যাত্রীদের চাপ, এমন দৃশ্য দেখেনি কেউ

গতকাল থেকে দেশে উৎযাপিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর। সাধারণত ঈদের আগেই মানুষ ঈদ উৎযাপন করতে গ্রামের বাড়িতে চলে যায়। করোনা মহামারির কারনে এবার পুরো দেশ জুড়েই দেখা গেছে ভিন্ন ভিন্ন চিত্র। এর মধ্যে ফেরিতে মারাও গেছে ৭ জনের মত। যারা হুরোহুরিতে বা অতিরিক্ত চাপের কারনে মারা গেছে বলে জানা যায়।

ঘরমুখি মানুষের ভির গতকাল ঈদের দিনেও দেখা গিয়েছিল শিমুলিয়া ঘাটে। সকালে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাট ঘুরে দেখা গেছে ফেরির গেট খুলে দিতেই শুরু হয় হুড়োহুড়ি। মুহূর্তেই সাধারণ যাত্রীদের দখলে চলে যায় পুরো ফেরি। এই যাত্রীদলে নারী, শিশু, বৃদ্ধ থেকে সবাই রয়েছেন। তবে তাদের প্রায় কারো মুখেই মাস্ক দেখা যায়নি। কেউ হাতে রেখেছেন তা, কারো থুতনির নিচে। সামাজিক দূরত্ব মানার বিষয়টি চিন্তাও করতে পারছিলেন না সাধারণ যাত্রীরা।

শিমুলিয়া ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) প্রফুল্ল চৌহান বলেন, সকাল থেকে উভয়মুখী চাপ রয়েছে। সকালে কয়েকটি ফেরিতে শুধুমাত্র যাত্রী পার করা হয়েছে। এ নৌরুটে বর্তমানে ১৬টি ফেরি চালু রয়েছে। ঘাট এলাকায় প্রায় চার শতাধিক ছোট বড় যানবাহন পারের অপেক্ষায় রয়েছে।

ঘাটে দায়িত্বরত লৌহজং থানার উপপরিদর্শক আ. খালেক বলেন, নিয়ম মতোই সব চলছে। সাধারণ যাত্রীদের চাপ সামলাতে গিয়ে ফেরিতে গাড়ি উঠানো যাচ্ছে না।

পাঠকের মতামত:
Back to top button