International News

ভারতে আসছে একের পর এক দুর্যোগ

ভারতে আসছে একের পর এক দুর্যোগ। এ যেন দুর্যোগের চক্রব্যুহ। করোনাভাইরাসের কারণে এমনিতেই ভারতের অবস্থা টালমাটাল। তার পাশাপাশি একাধিক প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে ভয়াবহ অশনিসঙ্কেত বিরাজ করছে। আবার সিকিম ও লাদাখ সীমান্তে চীনের সঙ্গে চলছে উত্তেজনা। কয়েকটি রাজ্যে চলছে পঙ্গপালের হানা। কয়দিন আগেই সুপার সাইক্লোন আম্পানে লণ্ডভণ্ড হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ ও উড়িষ্যা রাজ্য। রাজস্থান রাজ্যে চলছে তীব্র দাবদাহ। এর মধ্যেই দেশটির উত্তরাখণ্ডে চলছে দাবানলের গ্রাস।

স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, উত্তরাখণ্ডে দাউ দাউ করে জ্বলছে বনাঞ্চল। গত চার দিনে পর পর চারবার আগুন লেগে ছারখার হয়ে গেছে বিস্তীর্ণ অঞ্চল। বনাঞ্চল তো তো ধ্বংস হয়েছেই। পাশাপাশি মারা গেছে বহু বন্যপ্রাণী। পরিস্থিতি এমন যে, বনাঞ্চলের ছবিগুলো যেন ব্রাজিলের আমাজনের দাবানলের স্মৃতি মনে করিয়ে দিচ্ছে।

জানা যায়, উত্তরাখণ্ড রাজ্যের ৭১ দশমিক ৫ শতাংশ বনাঞ্চল। গত চার দিন ধরে দাউ দাউ করে জ্বলছে কুমায়ুন এলাকার বনাঞ্চল। এতে পুড়ে ছাড়খার হয়ে গেছে অন্তত ৫-৬ হেক্টর জমির সবুজ বন। ফলে ব্যাপক কঠিন পরিস্থিতির মোকাবেলা করতে হচ্ছে বনবিভাগকে।

সরকারি হিসাব বলছে, গত দুই দিনেই পাঁচ হেক্টর বনভূমি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। চলতি বছর এ পর্যন্ত ৪৬টি দাবানলের ঘটনা ঘটেছে উত্তরাখণ্ডে। এতে প্রায় ৫১ দশমিক ৩৪ হেক্টর বনভূমির ক্ষতি হয়েছে। শুধু কুমায়ুন অঞ্চলেই ২১টি ঘন জঙ্গল রয়েছে। এই অঞ্চলে ১৬টি দাবানলের ঘটনা ঘটেছে। যার কারণে প্রায় ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ ছাড়া সংরক্ষিত বনাঞ্চলে ৯টি আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। দুই বনকর্মী প্রাণও হারিয়েছেন।

পাঠকের মতামত:
Back to top button