Health News

চা-কফি পানের সঠিক সময়

চা-কফি – অনেকে সকালে ঘুম থেকে উঠে এনার্জি পেতে চা-কফি পান করে থাকে। এটা ঠিক নয়। চা-কফি বেশি পান করা উচিত নয়। খেতে হবে সীমিত পরিমাণে ও সময় বুঝে। আমরা অনেকেই জানি না যে, কখন চা-কফি পান করা যাবে না।

চা-কফি পান করলে উদ্বেগ বা চিন্তা কমে, ক্লান্তি দূর হয় এবং ত্বকে ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে। আসুন জেনে নেই চা-কফি পানের সঠিক সময়।

চা-কফি পানের সঠিক সময় হচ্ছে সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিটের মধ্যে। এই সময়ে চা-কফি পান করা নিরাপদ।

আপনি যদি দুপুর ১২টা থেকে ১টার মধ্যে কফি পান করেন, তবে তা ক্ষতিকারক হতে পারে। তথ্যসূত্র: বোল্ডস্কাই

শিশুর স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর উপায়

স্মৃতিশক্তি কম হলে অনেক সময় অনেক কিছুই মনে থাকে না। আবার স্মৃতিশক্তি তুখোড় হলে সহজেই সব কিছু জয় করা যায়। শক্তিশালী স্মৃতিশক্তি নিয়ে আমরা জন্মাই না। যেকোন দক্ষতার মতো এটি বিভিন্ন উপায়ে অর্জন করতে হয়। যে যত বেশি অনুশীল করবে সে ততবেশি লাভবান হবে। শিশুর স্মৃতিশক্তি তুখোড় করার জন্য কিছু উপায়ের কথা বলেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

শরীরচর্চা

শরীর চর্চার ফলে দেহ মন সুস্থ থাকে। শিশুদের প্রতিদিন এ অভ্যাস গড়ে তুলতে পারলে বেশ উপকার পাওয়া যাবে। কেননা নিয়মিত শরীরচর্চা মস্তিষ্ককে তীক্ষ্ণ রাখতে এবং তাদের মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বাড়াতে সহায়তা করে।

শেখা ও শেখানো

কেউ যদি কোন কিছু বুঝতে পেরে থাকে, তাহলে সেটি অন্যের কাছে ব্যাখ্যা করা সহজ। এই কৌশলটি আপনার সন্তানদের সাথে ব্যবহার করুন। তারা যখন কোনও নতুন বিষয় শেখে, তাদের বা তোদের ছোট ভাইবোনকে শেখাতে বলুন। তাদের স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি পাবে এবং তাদের দ্বিধা পরিষ্কার থাকবে।

মেডিটেশন

মেডিটেশন সবাই করতে পারে। ছোট কিংবা বড় সবাই এই অভ্যাস গড়ে তুলতে পারবে। আপনি যেভাবে প্রতিদিন মেডিটেশন করেন, আপনার শিশুকেও এই কৌশল বা এই অভ্যাস গড়ে তুলতে শিক্ষা দিন। এতে করে দীর্ঘকালীন উপকার পাবে আপনার সন্তান।

ডিজিটাল ডিটক্স

বিভিন্ন গ্যাজেটের অত্যাধিক ব্যবহার শিশুর মস্তিষ্কের কাঠামো পরিবর্তন করতে পারে। এটি শিশুদের ঘনত্বের স্তর এবং তথ্য খুব দীর্ঘ সময়ের জন্য ধরে রাখার ক্ষমতা হ্রাস করে। আপনার শিশুর গ্যাজেট ব্যবহারের সময় সীমাবদ্ধ করুন। এর পরিবর্তে তাদের বই পড়া এবং অন্যান্য বহিরঙ্গন ক্রিয়াকলাপে জড়িত হতে উৎসাহিত করুন।

রং

রং ব্যবহারে শিশুর মস্তিষ্কে যেকোন তথ্য দীর্ঘদিন ধরে রাখতে সহায়তা করে। আমাদের মস্তিষ্ক প্রতি সেকেন্ডে কয়েক বিলিয়ন সংবেদনশীল তথ্যের একটি ছোট্ট অংশ ফিল্টার করে। আর এই ফিল্টারে রং সহজেই ধরা পড়ে। তাই দক্ষতার সাথে রং ব্যবহার করা উচিত। বিভিন্ন বর্ণের সাথে গুরুত্বপূর্ণ প্যাসেজ হাইলাইট করা এবং পাঠ্যপুস্তকে স্টিকি নোট ব্যবহার করা উপকারী হতে পারে।

পুষ্টি

পুষ্টি ব্যতিত ভালো স্বাস্থ্য ও ফিটনেস অর্জন করা কঠিন। আমাদের ডায়েট মস্তিষ্কসহ শরীরে সঞ্চালিত সমস্ত কার্যক্রমে একটি বড় ভূমিকা পালন করে। স্বাস্থ্যকর ডায়েট মস্তিষ্কের কার্যকারিতা উন্নত করতে পারে। পরবর্তী জীবনে স্মৃতিশক্তি হ্রাস রোধ করতে পারে।

পাঠকের মতামত:
Back to top button