Entertainment News

‘জানি, এই ছবির নিচেও আপনারা বা জে মন্তব্য লিখবেন’ ভাবনা

এই ছবির নিচেও- পবিত্র শবে মিরাজ। ইতিহাসের এই দিনগত রাতে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) আল্লাহর সঙ্গে সাক্ষাত করতে আরশে আজিমে যান। এ কা রণেই হিজরি রজব মাসের ২৬ তারিখের রাতটি মুসলমানদের কাছে অত্যন্ত মহিমাপূর্ণ ও তাৎপর্যবহ। এই রাতেই মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) মক্কা শরিফ থেকে ফেরেশতা জিবরাইল (আ.)-এর সঙ্গে সপ্তম আসমান পেরিয়ে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের সাক্ষাৎ লাভ করে আবার পৃথিবীতে ফিরে আসেন।

মুসলিম ধর্মালম্বীদের কাছে অত্যন্ত মহিমাপূর্ণ ও তাৎপর্যপূর্ণ রাত পবিত্র শবে মিরাজ। বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ এই রাতটি ছিল গতকাল। জিকির-আসকার, নফল নামাজ, দোয়ার মধ্যদিয়ে রাতটি অতিবাহিত করেছেন মুসলমানরা। সাধারণ মুসলিম ধর্মীও মানুষের মতো এই রাতটি ইবাদত বন্দেগীর মধ্য দিয়ে রাতটি কাটিয়েছেন অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনাও। এক ফেসবুকবার্তায় গতকাল রোববার এমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

ফেসবুক পোস্টের সঙ্গে ভাবনা প্রকাশ করেছেন একটি ছবিও। ক্যাপশন হিসেবে তিনি লিখেছেন- ‘আজ (রোববার) পবিত্র শবে মেরাজ। চলেন আমরা আল্লাহর কাছে ইবাদত করি, আল্লাহ যাতে সবাইকে সুস্থ রাখে। নাটকে অভিনয় করে নামাজ পড়ি না, আল্লাহকে ডাকি না সবাই তাই ভাবেন। আমাদের নাটকের অনেকেই শুটিংয়ের মধ্যেও এক রাকাত নামাজ মিস করে না। জানি এই ছবির নিচেও আপনারা বাজে মন্তব্য লিখবেন। তাতে কিছু যায় আসে না। আল্লাহ সবাইকে ভালো রাখুক।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি সংবাদ গতকাল থেকেই ঘুরছে। করো’না ভা ইরাসের কা রণে তিন মাস বাড়িভাড়া না নিতে নির্দেশ দিয়েছে উগান্ডা সরকার। বাংলাদেশে সরকারের পক্ষ থেকে এমন সিদ্ধান্ত না এলেও এগিয়ে এসেছেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী আশনা হাবিব ভাবনার মা রেহানা হাবিব নিজেই।

ভাবনা তার মা রেহানা হাবিব এই মাসের (মার্চ) ভাড়া না নেওয়ার কথা জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি ভিডিও পোস্ট দিয়েছেন।

‘জানি, এই ছবির নিচেও আপনারা বা জে মন্তব্য লিখবেন’ ভাবনা

শনিবার (২১ মার্চ) সন্ধ্যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুক এক ভি’ডিও বার্তার মাধ্যমে ভাবনার মা রেহানা হাবিব জানান,‘করো’না ভা ইরাস মহামা রি আকার ধারণ করার কা রণে দেশের সবকিছুই স্থগিত হয়ে গেছে। কর্মজীবী মানুষ কর্মস্থলে যেতে পারছে না, তাই আমি এদেশের একজন ক্ষুদ্র নাগরিক হিসেবে আমার বাসার সকল ভাড়াটিয়াদের মার্চ মাসের ভাড়া মওকুফ করে দিলাম, আমি আশা করি বাংলাদেশের সকল বাড়িয়ালাদের এই দুর্যো গের সময় ভাড়াটিয়াদের পাশে দাঁড়ানো উচিত।

এ বিষয়ে বিস্তারিত কথা বলতে যোগাযোগ করা হয় ভাবনার সঙ্গে তিনি জানান, আমার মায়ের মতো অন্য বাড়ি মালিকদের উচিত এই মাসের ভাড়া না নেয়া। চলুন আমার সবাই সবার পাশে দাঁড়াই,সময়ের তাড়াতাড়ি দূর করবেন। নিজেরাই শুধু বাজার করে ফ্রিজ ভরে ফেলবেন না। মানুষদেরও সাহায্য করুণ।

ভাবনার বাবা নির্মাতা হাবীবুর রহমান হাবিব জানান, তাদের মালিকানায় রাজধানীর হাজারীবাগ এলাকায় ৬ তলা বাড়িতে ছয়টি পরিবার ভাড়া থাকেন। বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে তাদের কাছ থেকে মার্চ মাসের ভাড়া না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

বাংলাদেশে এ ভা ইরাসে আ ক্রান্ত বেশ কয়েকজনকে শনাক্ত করা হয়েছে। জনসমাগমস্থল এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিচ্ছে সরকার। আত ঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে দেশজুড়ে। করো’না মোকা বিলায় ইতোমধ্যে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ অনেক অফিস-আদা লত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পাশাপাশি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে শপিং মলগুলোও।

এদিকে করো’নার প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশের শোবিজ অঙ্গনেও। তারকারা করো’না নিয়ে নানা পোস্ট দিচ্ছেন তাদের ফেসবুকে। পরামর্শ দিচ্ছেন বাসায় থাকতে ও নিয়ম মেনে চলতে। পিছিয়ে নেই নায়িকা নিপুনও। চলচ্চিত্র নায়িকা হিসেবে নিপুণের সুপরিচিতি। এর বাইরে তার আরও একটি পরিচয় অনেকেই জানেন। সেটা হলো ব্যবসায়ী।

গত কয়েক বছরে নিজ উদ্যোগে প্রসাধনী ও লাইফস্টাইলকেন্দ্রিক ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ‘টিউলিপ নেইলস অ্যান্ড স্পা’ গড়ে তুলেছেন তিনি। দেশের করোনা পরিস্থিতির কা রণে এবার প্রতিষ্ঠানটি বন্ধের পাশাপাশি কর্মীদের অগ্রিম বেতন দিলেন নিপুণ।

তিনি বলেন, ‘আপনারা জানেন, পুরো পৃথিবী থেমে আছে করো’নার কা রণে। বাংলাদেশেও এখন একইও অবস্থা বিরাজ করছে। এই সময়টুকু ঘরের ভেতরে থাকা খুব জরুরি। অনেকে জানেন, আমার একটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান আছে। যেখানে প্রায় ২৫ জন কর্মী কাজ করেন। প্রতিদিন প্রচুর মানুষ সেবা নিতে আসেন।

একটা জায়গায় এত মানুষ আসা ও সমাগম বি পদজনক। তাই স্পা সেন্টারটি বন্ধ ঘোষণা করেছি। পাশাপাশি কর্মীদের কিছু বেতনও দিয়েছি। এমনকি আশেপাশে কিছু দরিদ্র মানুষদেরও সহযোগিতা করেছি। আপনারাও সচেতন হোন। ঘর থেকে বের হবেন না।

রাজধানীর বনানী কামাল আতাতুর্ক এভিনিউতে নিপুণের ‘টিউলিপ নেইলস অ্যান্ড স্পা’ অবস্থিত। ২০১৬ সালে এটি চালু করেন তিনি। নিপুণ আরও জানান, বিদেশ থেকে তার মা, ভাই ও মেয়ে দেশে ফেরায় তারা এখন নিজেদের গৃহব ন্দি করে রেখেছেন। কেউ যদি বাইরে থেকে দেশে আসেন তবে একই কাজ করার আহ্বান জানান তিনি। প্রতিষ্ঠানের উদ্বোধনী আয়োজনে কনা-আলিশার সঙ্গে নিপুণ

পাঠকের মতামত:
Back to top button